আজকের রাশিফল

আজকের রাশিফল বস্তুত পুরাতন জ্যোতিষশাস্ত্রের এমন একটি ধরণ,যার মাধ্যমে বিভিন্ন সময়কাল নিয়ে ভবিষ্যৎবাণী করা হয়।  জ্যোতিষশাস্ত্র এমন একটি শাস্ত্র যা নভোমণ্ডলে বিভিন্ন জ্যোতিষ্ক অর্থাৎ গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থান বিবেচনা করে মানুষের ভাগ্যগণনা তথা ভাগ্য নিরূপণ করে। যারা এরূপে ভাগ্য গণনা করে তাদের বলা হয় জ্যোতিষ

জ্যোতিষ একটি সংস্কৃত শব্দ। এই শব্দের একটি অর্থ হল “জ্যোতির্বিষয়ক” এবং অস্ত্যর্থে এই শব্দের একটি অর্থ হল “জ্যোতিষশাস্ত্রবিৎ” এবং অন্য অর্থ “জ্যোতির্ব্বিৎ” । জ্যোতিষ ৬ টি বেদাঙ্গের অন্যতম। বেদাঙ্গ জ্যোতিষের উপলব্ধ শ্লোকগুলিতে মূলতঃ সূর্য্য-চন্দ্রের আবর্তন ও ঋতুপরিবর্তন সংক্রান্ত বিষয় আলোচিত হয়েছে। বেদের লিপিবদ্ধকরণের সময় যজ্ঞানুষ্ঠানের দিন, ক্ষণ ও মূহুর্তাদি নির্ণয়েও জ্যোতিষের বহুল ব্যবহার ছিল। উল্লেখ্য এই যে সেই সময় জ্যোতির্বিদ্যা ও জ্যোতিষবিদ্যা অভিন্ন ছিল।

রাশিফল

বর্তমানে প্রশ্নকর্তার জন্মসময়, তারিখ এবং জন্মস্থানের ভিত্তিতে, জন্মকালে মহাকাশে গ্রহের অবস্থান নিরুপণ করে অথবা প্রশ্নের সময় গ্রহাদির অবস্থান নির্ণয় করে, অথবা হস্তরেখাবিচার, শরীরের চিহ্নবিচার ইত্যাদি বিভিন্ন পদ্ধতির ব্যবহারে প্রশ্নকর্তার ভবিষ্যতের গতিপ্রকৃতি নির্ধারণ করার জ্ঞান ও পদ্ধতিকে জ্যোতিষশাস্ত্র বলা হয়। আবার জ্যোতিষশাস্ত্রের একটি বিভাগ দেশ, রাজ্য, শহর, গ্রাম ইত্যাদির এবং প্রাকৃতিক ঘটনাবলীর যেমন বৃষ্টি, অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, ভূমিকম্প, ঝড়, ঝঞ্ঝা, মহামারী বা প্লাবণের ভবিষ্যদ্বাণী করতেও ব্যবহৃত হয়। ব্যাক্তির বিভিন্ন তথ্যনুসারে রাশি নির্ধানের পর যে ভবিষ্যতে ঐ ব্যাক্তির সাথে এমন কিছু ঘটতে পারে বলে যে বিষয়গুলি বলা হয়ে থাকে তাকেই রাশিফল বলা হয়।

যিনি জ্যোতিষশাস্ত্রের চর্চা করেন, তিনি জ্যোতিষী নামে পরিচিত। আধুনিককালের জ্যোতিষীগণ প্রতীকের মাধ্যমে জ্যোতিষশাস্ত্র অধ্যয়ন করে থাকেন। জ্যোতিষ ব্যাক্তিরাই আজকের রাশিফল আবিস্কার করেছেন। এছাড়াও এটি এক ধরনের কলাশাস্ত্র বা ভবিষ্যৎকথন হিসেবে পরিচিত।

লক্ষণীয় এই যে জ্যোতিষশাস্ত্রের প্রয়োগসূত্রগুলি কেবল সম্ভাবনা নির্দেশ করেই আজকের রাশিফল নির্ধারণ করেন, কিন্তু কোন নিশ্চিত ঘটনার কথা বলে না। তার কারণ এই যে জ্যোতিষীগণ মনে করেন মানুষ সচেতন কর্মের সাহায্যে অথবা ঈশ্বরের আশীর্বাদে অথবা এই দুইয়ের মিশ্রিতফলে ভাগ্য অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ এবং পরিবর্তন করতে পারে। এই নিশ্চয়তার তারতম্যের কারণে অনেক বিজ্ঞানী জ্যোতিষশাস্ত্রকে মান্যতা দেন না। একদিকে যেমন বিখ্যাত বিজ্ঞানী ইয়োহানেস কেপলার একই সাথে জ্যোতির্বিজ্ঞানী এবং জ্যোতিষী ছিলেন, আবার অন্যদিকে বিজ্ঞানীদের অনেকে জ্যোতিষশাস্ত্রকে ভ্রান্ত প্রতিপন্ন করতে চেয়েছেন। যেমন, ১৯৭৫ সালের সেপ্টেম্বরে দ্য হিউম্যানিস্ট পত্রিকায় অনেক বিজ্ঞানী আনুষ্ঠানিকভাবে জ্যোতিষশাস্ত্রের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। এছাড়া বিখ্যাত বিজ্ঞান কাহিনী লেখক কার্ল সেগান তার একটি প্রামাণ্য চিত্রে এ নিয়ে আলোচনা করেছেন। তৎসত্ত্বেও জ্যোতিষশাস্ত্রের প্রতি বহু মানুষের বিশ্বাস এখনও অটুট।

মেয়েদের ইসলামিক নাম জানুন এখানে 

আজকের রাশিফল

আজকের রাশিফল ১২ রাশির জাতক-জাতিকার কেমন যাবে দিনটি

মেষ রাশি (২১ মার্চ – ২০ এপ্রিল): মেষ রাশির জাতক-জাতিকার বৈদেশিক যোগাযোগে সাফল্য আসবে। গণমাধ্যমের কাজে সুযোগ পেতে পারেন। ছোট ভাই-বোনের বিবাহ শাদীর আলোচনায় হবে অগ্রগতি। বস্ত্র ও গার্মেন্টস ব্যবসায় ভালো অর্ডার লাভের আশা। অনলাইনের বেচাকেনায় অগ্রগতি হবে।

বৃষ রাশি (২১ এপ্রিল – ২০ মে): বৃষ রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি আর্থিকভাবে বলবান। আয় রোজগারের ক্ষেত্রে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা সাফল্য পাবেন। কিছু অর্থ সঞ্চয়ের সুযোগ আসবে। বকেয়া কোনো অর্থ পেতে পারেন। রেস্তোরা ও হোটেল ব্যবসায়ীদের আয় রোজগারের সুযোগ আসবে। বাণিজ্যিক আলোচনায় সফল হবেন।

মিথুন রাশি (২১ মে – ২০ জুন): মিথুন রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি শুভ সম্ভাবনাময়। ব্যক্তি ও পারিবারিক জীবনে হয়ে উঠবে আনন্দময়। অসুস্থদের শারীরিক ও মানসিক অবস্থার উন্নতি হবে। কিছু পরিকল্পনা অন্যদের সঙ্গে ভাগাভাগি করাতে তারা আপনার কাজের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবে।

কর্কট রাশি (২১ জুন – ২০ জুলাই): কর্কটের জাতক-জাতিকার দিনটি হবে ব্যয়বহুল। কর্মস্থলে ফিরে আসার সম্ভাবনা প্রবল। প্রবাসী ভাই-বোনের সাহায্য পাবেন। বিদেশ যাত্রায় হবে অগ্রগতি। অংশীদারি কাজের ক্ষেত্রে নতুন বিনিয়োগের প্রয়োজন। প্রবাসী কারো সাহায্য পেতে পারেন।

সিংহ রাশি (২১জুলাই – ২১ আগস্ট): সিংহ রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি হবে বন্ধু মিলনের। অনেকদিন পর বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলতে ভালো লাগবে। বড় ভাই-বোনের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হবে। বকেয়া কিছু বিল আদায় হতে চলেছে।

কন্যা রাশি (২২ আগস্ট – ২২ সেপ্টেম্বর): কন্যার জাতক-জাতিকার দিনটি হবে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার। নিজের প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে প্রভাবশালী কারো সঙ্গে হতে পারে লেনদেনের কথা। রাজনৈতিক বিষয়ে জটিলতা দেখা দেবে। পিতার সঙ্গে অহেতুক বিরোধে জড়িয়ে যেতে পারেন। চাকরি সংক্রান্ত বিরোধের নিষ্পত্তি হতে চলেছে।

তুলা রাশি (২৩ সেপ্টেম্বর – ২১ অক্টোবর): তুলা রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি মানসিক ও আধ্যাত্মিক উন্নতির। দূরের যাত্রায় অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। জীবিকার জন্য বিদেশ যাত্রার আলোচনায় হবে অগ্রগতি। শিক্ষক গুরুজনদের সান্নিধ্য ভালো লাগবে। ধর্মীয় কোনো আলোচনায় অংশ নিতে পারেন। প্রবাসী ভাই-বোনের সাহায্য লাভের আশা।

বৃশ্চিক রাশি (২২ অক্টোবর – ২০ নভেম্বর): বৃশ্চিক রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি মানসিকভাবে ভালো যাবে। আজ অবশ্যই বেপরোয়া মনোভাব এড়িয়ে চলতে হবে। কারো সঙ্গে বিবাদে বা তর্কে যাওয়ার চেষ্টা হবে বোকামি। ঝুঁকিপূর্ণ কোনো বিনিয়োগ বা লেনদেনে আপনাকে হতে হবে সাবধান। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাত্রা করাটা ঠিক নয়।

ধনু রাশি (২১ নভেম্বর – ২০ ডিসেম্বর): ধনু রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি সাংসারিক জীবনে সুখ শান্তি বৃদ্ধির। জীবন সঙ্গীর সঙ্গে কোথাও বেড়াতে যেতে পারেন। খুচরা ও পাইকারি ব্যবসায়ীদের দিনটি আশানুরূপ আয় রোজগারের। সাংসারিক ক্ষেত্রে আত্মীয়স্বজনের সাহায্য পেতে চলেছেন।

মকর রাশি (২১ ডিসেম্বর – ২০ জানুয়ারি): মকর রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি ভালো যাবে। সকলের সান্নিধ্য ও সহায়তা আপনার সকল ক্লান্তি ও অবসাদকে দূর করে দেবে। বহু পরিশ্রমের প্রভাবে শরীর হতে পারে দুর্বল। কাজের লোক বা অধীনস্থ কর্মচারীদের সাহায্য পাবেন। মূল্যবান দ্রব্যাদি সামলে রাখতে হবে।

কুম্ভ রাশি (২১ জানুয়ারি – ১৮ ফেব্রুয়ারি): কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকার প্রেম ভালোবাসা ও রোমান্সের জন্য দিনটি চমৎকার। সন্তানের সঙ্গে চলতে থাকা সকল বিরোধ দূর হয়ে যাবে। শিল্পী কলাকুশলী ও সৃজনশীল নির্মাতাদের দিনটি সম্মান ও মর্যাদা বৃদ্ধির।

মীন রাশি (১৯ ফেব্রুয়ারি – ২০ মার্চ): মীন রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি সকল দিক থেকেই প্রত্যাশা পূরণের। সন্তানের পড়াশোনা নিয়ে কোনো বড় সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। আত্মীয়স্বজন ও পরিবার পরিজনের সাক্ষাৎ লাভের আশা। মায়ের সাহায্য লাভ। অমীমাংসিত স্থাবর সম্পত্তি বিভাজনের আলোচনা হবে।

ধর্ম